30 C
Guwahati
Tuesday, September 27, 2022
More

    বিয়ের দাবি নিয়ে পোস্টার হাতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় কলেজ ছাত্রী

    বিয়ের দাবি নিয়ে পোস্টার হাতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় কলেজ ছাত্রী

    কলকাতা, ৪ জুনঃ বিয়ের দাবি নিয়ে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় বসলেন কলেজ ছাত্রী প্রেমিকা। হাতে একখানা পোস্টার। তাতে লেখা, আমাকে বিয়ে করতে হবে, নইলে আত্মহত্যা করব। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় হইচই পড়ে গিয়েছে। 

    ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার ডোমকলের শেখালিপাড়ায়। ধরনায় বসা ওই কলেজ ছাত্রীর দাবি, শেখালিপাড়ার বাসিন্দা আব্বাসউদ্দিনের সঙ্গে বছর তিনেক আগে তাঁর পরিচয় হয়। এরপর পরিচয় থেকে তাঁদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে শুরু করে। এরপর তাঁরা প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। আব্বাসের পরিবার শুরু থেকেই এই সম্পর্ক মানতে রাজি ছিল না। জুলেখা এবং আব্বাস ভেবেছিলেন, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সব ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু বাস্তবে তেমন কিছুই হয়নি। বছরের পর বছর কেটে গেলেও, জুলেখার সঙ্গে আব্বাসের সম্পর্ক কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেনি আব্বাসের পরিবার। এরপরই জুলেখা জানতে পারেন যে, আব্বাসের অন্যত্র বিয়ে ঠিক করা হয়েছে।

    খবর শোনামাত্রই বৃহস্পতিবার বিকেলে আব্বাসের বাড়িতে ছুটে যান জুলেখা। বাড়ির ভিতর ঢুকেও পড়েন তিনি। তাঁকে দেখে মারমুখী হয়ে ওঠে আব্বাসের পরিজনেরা। ওই যুবকের ভাইবোনেরা আব্বাসকে মারধর করে বলেও অভিযোগ। তারপরই আব্বাসের বাড়ির সামনে পোস্টার হাতে ধরনায় বসেন জুলেখা। পোস্টারে লেখা, ‘বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিন বছর ধরে সব সম্পর্ক করে এখন অন্য মেয়েকে বিয়ে করবে? আমাকে বিয়ে করুক না হয় মেরে ফেলুক। না হলে আমি আত্মহত্যা করব।’ এই পোস্টার হাতে জুলেখাকে ধরনায় বসতে দেখে অবাক আব্বাসের প্রতিবেশীরাও। স্বাভাবিকভাবেই বাড়ির সামনে ভিড় জমিয়েছেন তাঁরা। শুরু হয়েছে ফিসফিসানিও। এ বিষয়ে যদিও আব্বাস কিংবা তাঁর পরিজনদের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

    আরো দেখুন : নিজেই নিরাপত্তারক্ষী! হাতে লাঠি নিয়ে রোগীর চিকিৎসা করেন এই ডাক্তার

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং