19 C
Guwahati
Sunday, November 27, 2022
More

    সীমান্তে শান্তি ফেরাতে প্রশাসনকে গুচ্ছ পরামর্শ বিরোধী দলনেতা দেবব্রত শইকিয়ার

    শিলচর, ৯ নভেম্বর : রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতা দেবব্রত শইকিয়া কাছাড় জেলার অসম-মিজোরাম আন্তঃরাজ্য সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেন।রবিবার সকালে সীমান্ত অঞ্চল পরিদর্শন শেষে শইকিয়া বিকেলে জেলাশাসকের  অফিস চেম্বারে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বিরোধী নেতা এই আন্তঃরাজ্য সীমান্তে উত্তেজনা হ্রাস এবং স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনার জন্য জেলা প্রশাসনের কাছে সীমান্ত অঞ্চলগুলিতে তাঁর সফর শেষে কিছু পরামর্শ রাখেন।

    শইকিয়া বলেন, মিজোরাম সরকার অসম অঞ্চলে বিওপি স্থাপন করেছে, যার বিহিত ব্যবস্থা অতি সত্বর নেওয়া উচিত। সীমান্তের অসমের ভূখণ্ডের মধ্যে মিজোরাম সরকারের দ্বারা   ভাইরেংটির পার্শ্ববর্তী জাতীয় সড়কের পাশে বহু জায়গা তাদের দখলে নেয়ার  প্রসঙ্গে জেলাশাসকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।তিনি প্রশাসনের কাছে মিজো দুর্বৃত্তদের দ্বারা ধ্বংস হওয়া স্কুলগুলির পুনর্নির্মাণের পদক্ষেপ গ্রহন, স্থানীয় জনগণের মধ্যে আস্থা বাড়াতে সীমান্তে পুলিশ কর্মীদের দ্বারা টহল জোরদার করার প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দেন।তিনি আহত ব্যক্তিদের আর্থিক সহায়তা এবং মিজো দুর্বৃত্তদের দ্বারা ছাই করা বাড়িগুলির ২২টি পরিবারকে ত্রাণ দেওয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।  এ প্রসঙ্গে তিনি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলিকে বাসগৃহ  তৈরির জন্য প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার আওতায় বরাদ্দের পরামর্শ দেন।

    শইকিয়া ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তিদের জমির পাট্টা দেওয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।তিনি মৃত ব্যক্তির নিকটাত্মীয়কে  সরকারি চাকরি দেওয়ার জন্য রাজ্য সরকারকে অনুরোধ করেন। মিজোরাম সরকারের কাছেও তাদের হেফাজতে মৃত্যুর জন্য ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। এই আলোচনাকালে জেলাশাসক কীর্তি জাল্লি, পুলিশ সুপার বানোওয়ার লাল মীনা এবং অন্যান্য উর্ধ্বতন প্রশাসনিক কর্তাব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। জল্লী বিরোধী দলের নেতাকে জেলা প্রশাসন ও রাজ্য সরকার কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের বিষয়ে অবহিত করেন, যার মধ্যে তিনটি বিওপি স্থাপন এবং নিয়মিত বৈঠক করা এবং তার কলাশিব জেলাশাসকের  সঙ্গে যোগাযোগ, সীমান্তে শান্তি ফিরিয়ে আনতে স্থানীয় জনগণের সঙ্গে মতবিনিময় ইত্যাদি প্রয়াসের কথা উল্লেখ করেন।

    পুলিশ সুপার মীনা বিরোধী নেতাকে জানান, সীমান্তে উদ্ভুত  পরিস্থিতি সম্পর্কে একটি বিশদ প্রতিবেদন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে।প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ মিনিট ব্যাপী এই বৈঠকে ডিএফও সান্নিদেও চৌধুরী, বিধায়ক কমলাক্ষ দেপুরকায়স্থ, প্রাক্তন বিধায়ক সিদ্দিক আহমেদ, প্রাক্তন মন্ত্রী অজিত সিং এবং প্রাক্তন সাংসদ সুস্মিতা দেব উপস্থিত ছিলেন।

    উল্লেখ্য,  দেবব্রত শইকিয়া  দুই দিনের সফরে বরাক উপত্যকায় এসেছেন। সোমবার তিনি  আসাম-মিজোরাম আন্তঃরাজ্য সীমান্ত বরাবর করিমগঞ্জ জেলার মেদলিছড়া ও ছোট ববিরবন্দ সীমান্ত অঞ্চল পরিদর্শন করছেন। এদিন করিমগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সঙ্গেও তাঁর সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা রয়েছে। 

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং