26 C
Guwahati
Saturday, September 25, 2021
  • হোম
  • ভিডিও
  • টাইমকাষ্ট
More

    সম্পাদকীয়ঃ লক্ষ্য দারিদ্র ও দুর্নীতিমুক্ত দেশ গঠন

    ২০২১ সালে ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করবে দেশ। এ বারের অর্থাৎ ২০২০ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসে তার দিশা দেখাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার জন্য সামনে আনা হবে এক ভিশন ডকুমেন্ট, যাতে ২০২১ সালের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের লক্ষ্য নির্দিষ্ট করা হবে। ভিশন ডকুমেন্ট অনুযায়ী, ২০২২ সালের মধ্যে ভারতকে দারিদ্র ও দুর্নীতিমুক্ত দেশে পরিণত করার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে। মোদি সরকারের সামনে লক্ষ্য এমনই। নিতি আয়োগের মাধ্যমে তৈরি এই ভিশন ডকুমেন্টের মূল কথা, ভারতকে এক অন্য মাত্রায় নিয়ে যাওয়া, যার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হবে ২০২০ ও ২০২১ সালের স্বাধীনতা দিবসের অনুস্থানে।এই ভিশন ডকুমেন্ট তৈরিতে নিতি আয়োগের সঙ্গে কাজ করেছে গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকও। এই প্রকল্পের অধীনে কেন্দ্র সরকারের লক্ষ্য, পানীয়জল, বিদ্যুৎ, স্বাস্থ্য, শিক্ষা পরিষেবা দেশের প্রতি ঘরে পৌঁছে দেওয়া। ২০২২ সালে প্রত্যেকের মাথার ওপর ছাদ হবে, সেই আশ্বাসও দেওয়া হয়েছে এই ভিশন ডকুমেন্টে।মন্ত্রককে ২০২২ সাল পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ঘটিয়ে সার্বিক উন্নতি ঘটানোর কাজে অগ্রসর হতে। কৃষি ক্ষেত্র, যোগাযোগ ব্যবস্থা, পণ্য সরবরাহ ব্যবস্থা, এই প্রকল্পের আওতায় পড়েছে। কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর সরকারের এই পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছেন।তবে এই উন্নয়নের মূলে থাকবে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা। বেকারত্ব ঘুচিয়ে স্বনির্ভরতার পথে হাঁটার কথা বলা থাকবে ভিশন ডকুমেন্টে। সেক্ষেত্রে আর্থিক উন্নয়ন যেমন হবে, তেমনই জীবনযাত্রার মানও উন্নত হবে গ্রামাঞ্চলে। কর্মসংস্থানের দিকে নজর দিতে গেলে প্রয়োজন পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ ও কর্মদক্ষতার। সেই খোঁজও শুরু করা হবে। এই দিকে জোর দিয়ে দেশের গ্রাম গুলিতে কর্মদক্ষ যুব সম্প্রদায়ের খোঁজ করা হবে। শুরু করা হবে প্রশিক্ষণ ও দক্ষতা বৃদ্ধির নানা প্রোগ্রাম। দক্ষতা বৃদ্ধি, জল সংরক্ষণ, স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সচেতনতা বৃদ্ধি, অর্থ সাহায্য, গৃহনির্মাণ, সড়ক নির্মাণ, ইন্টারনেট ও টেলিফোন ব্যবস্থার প্রসার, ইত্যাদি এই সব প্রকল্পের আওতাধীন। কেন্দ্রীয় সরকার এত বড় পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করলেও কিভাবে এই কর্মযজ্ঞ সম্ভব হবে, এর জন্য অর্থ কোথা থেকে আসবে, ভিশন ডকুমেন্টে তাঁর কোনও দিশা নির্দেশ নেই। ফলে কেন্দ্রীয় সরকারের অন্যান্য পাঁচটা পরিকল্পনার মতো দারিদ্র ও দুর্নীতিমুক্ত দেশ গঠনের লক্ষ্যও ‘গিমিক’ কি না, সেটা জানতে হলে দেশবাসীকে অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই। অবশ্য, ভারতের মতো দেশে আচমকা পরিবর্তন সম্ভব নয়। তাই মোদী সরকার বিভিন্ন পরিকল্পনা ও কর্মসূচি গ্রহন করলেও বাস্তবে তা ফলপ্রসূ হয়নি। কিন্তু তাই বলে তো নির্বিকার হয়ে বসে থাকলে চলে না। সে জন্যই নিত্য নতুন পরিকল্পনা গ্রহন করে চলেছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সেই ব্যতিক্রমী মানসিকতার প্রতিফলন নয়া ভিশন ডকুমেন্ট। যা আগামী ১৫ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী নিজেই তাঁর নয়া পরিকল্পনা ও লক্ষ্যের কথা ঘোষণা করবেন।

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং

    আজি বিশ্বকৰ্মা পূজা, সমগ্ৰ ৰাজ্যতে পূজাৰ ব্যস্ততা

    বৈদ্যুতিন আৰু ছপা সংবাদ মাধ্যমৰ কাৰ্যালয়সমূহো পুৱাৰে পৰা ব্যস্ততা দেখা গৈছে

    ছচিয়েল মিডিয়াত ভাইৰেল হৈছে এগৰাকী বিধায়িকাৰ নৃত্য, চাওক VIDEO

    আনহাতে বিধায়িকাগৰাকীক এই সন্দৰ্ভত আছুৱে চেপনৰ ৰণশিঙা কাৰ্যসূচীৰ পৰা প্ৰত্যাহ্বান জনাই এনে কাৰ্যৰ পৰা বিৰত থাকিবলৈ আহ্বান জনায়

    “ইচ্ছামৃত্যু” বিচাৰি বেতন বঞ্চিত শিক্ষকৰ ৰাষ্ট্রপতি-ৰাজ্যপাললৈ আবেদন

    শিৱসাগৰ জিলাৰ ১৫০০ ৰো অধিক শিক্ষক শিক্ষয়িত্ৰীয়ে বিগত ৮ বছৰ ধৰি মাহেকীয় দৰমহাৰ পৰা বঞ্চিত হৈ আছে

    ন্যায়ালয়ত মুখ থেকেচা নৱ ঠাকুৰীয়াৰ, কাইলৈ অনুষ্ঠিত হ’বই গুৱাহাটী প্ৰেছ ক্লাৱৰ নিৰ্বাচন

    কাইলৈ পুৱা ৮ বজাৰ পৰাই বিয়লি ৪ বজালৈ অনুষ্ঠিত হ’ব গুৱাহাটী প্ৰেছ ক্লাৱৰ নিৰ্বাচন। বিয়লি ৫ বজাৰ পৰা হ’ব ভোট গণনা

    আজি সতী সাধনী দিৱস; জানো আহক সতী সাধনীৰ ইতিহাস

    যিকেইগৰাকী অসমীয়া বীৰাংগনাৰ নাম বুৰঞ্জীৰ বুকুত স্বৰ্ণলিপিৰে খোদিত হৈ আছে তেওঁলোকৰ ভিতৰত এটি অন্যতম নাম সতী সাধনী

    এজন দুজন নহয় ৪০০জন লোকক কোৱাৰাইণ্টাইন মৰিয়নীত

    নাগালেণ্ডৰ পৰা নিজৰ ঘৰলৈ যাবৰ বাবে খোজকাঢ়ি আহিছিল এইসকল লোকে

    ডফলীৱালেৰ চিৰ বিদায়, ‘ম্যে মৰ কৰ ভি না মৰ ছকা, ঔৰ না হি জী-কৰ জী ছকতা হুঁ’

    প্ৰেম কৰাই যেন জীৱন, ৰীল লাইফ আৰু ৰীয়েল লাইফ দুয়োটাতে সফলতাৰে মোহৰ মাৰিছে প্ৰেমৰ