19 C
Guwahati
Tuesday, November 22, 2022
More

    শিলচরে পৌঁছল কেন্দ্রীয় বাহিনী, মিজোরাম সীমান্তে মোতায়েন শীঘ্রই

    শিলচর, ৫ নভেম্বর: অগ্নিগর্ভ অসম-মিজোরাম সীমান্তে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার উদ্দেশ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবারই কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রথম দল শিলচরে এসে পৌঁছেছে বলে বিশেষ সূত্রে জানা গেছে। তাদের কাছাড় জেলার লায়লাপুর এবং করিমগঞ্জ জেলার মেদলিছড়া সীমান্তে মোতায়েন করা হবে। অসম ও মিজোরাম উভয় রাজ্যের সীমান্ত এলাকা সুরক্ষিত রাখার লক্ষ্যে তারা কাজ করবে। রাজ্যের মুখ্যসচিব জিষ্ণু বরুয়া বরাক উপত্যকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির পর্যালোচনা করে সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। মুখ্যসচিব বরুয়ার নেতৃত্বে ডিজিপি ভাস্করজ্যোতি মহন্ত বুধবার শিলচরে বরাক উপত্যকার সামগ্রিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেন।তাঁরা  আন্তরিকভাবে এবং শান্তিপূর্ণ পথে সীমান্ত সমস্যা সমাধানের জন্য সমস্ত বিকল্প নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন ।

    পরে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মুখ্যসচিব বরুয়া জানান, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে তিনি এবং ডিজিপি এখানে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি প্রত্যক্ষ করতে এবং দুর্বৃত্তদের হাতে নিহত ব্যক্তির  শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন।এককালীন ভাতা  হিসাবে ৫ লক্ষ টাকার একটি চেক শোকসন্তপ্ত পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে এবং সর্বোপরি একটি শোক বার্তাও প্রদান করা হয়।সীমান্তের ওপারে দুর্বৃত্তদের হাতে লায়লাপুরের এক ব্যক্তির মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে বরুয়া বলেন, সীমান্তের এই ঘটনায় তিনি উদ্বিগ্ন।পুরো ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত করা হবে।

    এক প্রশ্নের জবাবে মুখ্যসচিব  বলেন, আসামের সাংবিধানিক সীমানা সম্পর্কে অসম সরকার অবগত এবং ১৯৮৬ সালের মিজোরাম অ্যাক্ট দ্বারা এটি পরিষ্কারভাবে সংজ্ঞায়িত হয়েছিল যখন মিজোরাম আসাম রাজ্য থেকে পৃথক হয়েছিল । কিছু চক্রান্তকারী রাজ্যদুটির মধ্যে  বিরোধ জারি রাখতে ইন্ধন জুগিয়ে যাচ্ছে।তবে আলোচনার মাধ্যমে শীঘ্রই সীমান্ত সমস্যার সমাধান খুঁজে বের করা হবে বলে মুখ্যসচিব উল্লেখ করেন।

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং