27 C
Guwahati
Friday, May 20, 2022
More

    বরাকের ৪ বিধায়ক অগপয় যোগ দিতে চাইছেন, দাবি জিতু বরগোহাইর

    শিলচর, ১৭ অক্টোবর : ‘বিজেপি বড় শরিক, তবে এর মানে এই নয় যে আমরা ওদের লেজুড়বৃত্তি করব। বন্ধু হিসেবে পূর্ণ মর্যাদাই দিতে হবে আমাদের।’ এই বক্তব্য অসম গণ পরিষদের যুব শাখা অসম যুব পরিষদের কার্যকরী সভাপতি জিতু বরগোহাইর।একুশের নির্বাচনের মুখে সংগঠনকে শক্তিশালী করে তোলার লক্ষ্য নিয়ে বরাক সফরে রয়েছেন তিনি। শিলচর অগপ কার্যালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে জিতু বলেন, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে অগপ বরাক উপত্যকায় কমপক্ষে ৫টি আসন দাবি করবে। এতদিন তারা ছোট শরিক হিসেবে রক্ষণাত্মক ভূমিকায় থাকলেও এবার আর তাতে রাজি নন। এবার রক্ষণাত্মক মোড়ক ছেড়ে আক্রমণাত্মক হবেন তারা। এবার বিজেপির কাছে বরাক উপত্যকায় ৫টি আসন চাওয়ার পাশাপাশি সমগ্র রাজ্যে চাইবেন কমপক্ষে ৪০টি আসন। আর বিজেপি তা মেনে নেবে বলেই আশাবাদী তিনি।
    তাঁর কথায়, গত নির্বাচনের সময়ের তুলনায় এবার অগপর শক্তি বেড়েছে অনেকটাই। তাই বেশি সংখ্যক আসন চাওয়াটা অযৌক্তিক কিছু নয়। বরাকে ৫টি আসন পাওয়া নিয়ে তাঁর বক্তব্য, এই উপত্যকায় কমপক্ষে ৪ জন বর্তমান বিধায়ক অগপয় যোগ দেবার জন্য যোগাযোগ করছেন দলের কর্মকর্তাদের সঙ্গে।একইভাবে দলে ভিড়ছেন কয়েকজন প্রভাবশালী প্রাক্তন বিধায়কও। স্বাভাবিকভাবেই বরাকে শক্তিশালী হচ্ছে দল। এমন পরিস্থিতিতে তারা চাইতেই পারেন ৫টি আসন। এই ৫টি আসনে নির্বাচনে লড়লে সবকটিতেই তাদের প্রার্থীরা জয়ী হবেন বলেও জোর গলায় দাবি করেন তিনি।

    সাংবাদিক সম্মেলনের আগে দলীয় কার্যালয়ে এক কর্মিসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে জিতু যুব পরিষদ কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিজেপি কর্মীরা যেমন বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পেয়ে চলেছেন, অগপ বা যুব পরিষদ কর্মীদেরও তা পাওয়া জরুরি। এর জন্য সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে হবে।এতেই প্রাপ্যটা আদায় করা সম্ভব হবে। তিনি এও বলেন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের যুব সংগঠনের কর্মীদের দাদাগিরি করতে দেখা যায়। যুব পরিষদের কর্মীরা এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম। তার মানে এই নয় যে, অন্যদের লেজুড়বৃত্তি করতে হবে। নিজেদের সাংগঠনিক শক্তি দেখিয়ে আদায় করে নিতে হবে সবকিছু।সাংবাদিক সম্মেলন ও সভায় উপস্থিত ছিলেন অগপ ও যুব পরিষদের স্থানীয় কর্মকর্তাদের মধ্যে বিমলেন্দু সিংহ, সুজিত দেব, রাজীব সিনহা, আয়েশা সুলতানা চৌধুরী, আব্দুল আওয়াল বড়লস্কর প্রমুখ। 

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং