26 C
Guwahati
Wednesday, October 5, 2022
More

    ফের যৌতুকের বলি গৃহবধূ, ফেরার শ্বাশুড়ি সহ অভিযুক্তরা

    ফের যৌতুকের বলি গৃহবধূ, ফেরার শ্বাশুড়ি সহ অভিযুক্তরা

    করিমগঞ্জ, ২৮ মে : সীমান্ত জেলার নিলামবাজার উত্তর বান্দরকোণার কমলাটিলা গ্রামের গৃহবধূ সালেহা বেগম খুন হওয়ার ২৪ ঘন্টা অতিক্রান্ত, কিন্তু এখন পর্যন্ত অভিযুক্তদের কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। সালেহার স্বামী জবরুল ইসলাম ঘটনার পরই আত্মসমর্পন করে। এদিকে ময়নাতদন্তের পর সালেহা বেগমের মরদেহ বৃহস্পতিবার তাঁর বাবার বাড়ির লোকজনদের হাতে সমঝে দেওয়া হয়েছে। এরপর নিলামাবাজারে সালেহার পৈতৃক ভিটে লোহারপাড়া প্রথমখন্ড গ্রামে এদিনই সম্পন্ন হয়েছে তাঁর শেষকৃত্য। 

    বুধবারই যৌতুকের বলি হয়েছেন বছর উনিশের গৃহবধূ সালেহা। তাঁকে পরিকল্পিত ভাবে খুন করা হয়েছে বলে সালেহার স্বামী জবরুল ইসলাম, শ্বাশুড়ি নেহারুন নেছা সহ অন্য দুই নিকটাত্মীয়কে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেছেন গৃহবধুর ভাই। অবশ্য খুনের দায়ভার স্বীকার করে পুলিশে আত্মসমর্পণ করে ঘাতক স্বামী। কিন্তু বাকি অভিযুক্তদের পাকড়াও করতে পারেনি পুলিশ। এনিয়ে চড়ছে ক্ষোভের পারদ। এমন আবহে অন্য অভিযুক্তদের পাকড়াও করতে অভিযান চলছে বলে আশ্বস্ত করেছেন মামলার তদন্তকারী অফিসার বারইগ্রাম চৌকির ইনচার্জ উৎপল চন্দ। তিনি বলেন, খুব দ্রুত বাকিদের পাকড়াও করবে পুলিশ। 

    এদিকে ময়না তদন্ত শেষে সালেহার মরদেহ তাঁর বাবার বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হলে সৃষ্টি হয় শোকাকুল পরিবেশের। চাপা ক্ষোভের আবহে সম্পন্ন হয় শেষকৃত্য।  উল্লেখ্য, বিয়ের মাত্র আটমাসের মাথায় যৌতুকের বলি হতে হয়েছে সালেহাকে। জানা গিয়েছে, গত সোমবার নিলামবাজারে বাবার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন সালেহা। স্বামীর ঘরে ফিরে যান বুধবার। অভিযোগ, ফেরার সময় স্বামীর দাবি মতো পঞ্চাশ হাজার টাকা নিয়ে না যাওয়ায় নির্মম ভাবে মারপিট করে খুন করা হয়েছে তাকে।

    আরো দেখুন : শনবিলে নৌকাডুবিতে হত ২, অবশেষে শিশু ও মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং