30 C
Guwahati
Tuesday, September 27, 2022
More

    জিরিবামে বাঙালি গ্রামের নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদ স্থানীয় বিধায়ক আসাবের

    শিলচর, ৭  জানুয়ারি : অসম-মনিপুর আন্তরাজ‍্য সীমান্তবর্তী জিরিবামে  জেলায় অনেক বাঙালি গ্রাম রয়েছে। যারা যুগ যুগ ধরে বসবাস করছেন। এখন বাঙালি গ্রামের উপর মনিপুরের আগ্রাসন আরম্ভ  হয়েছে। ইতিহাস বিজড়িত বাঙালি গ্রামের নাম গুলো মুছে দিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছে একাধিক মনিপুরি সংগঠন। এতে প্রত‍্যক্ষ মদত রয়েছে মনিপুরের বিজেপি সরকারের। বাঙালিদের অস্তিত্ব শেষ করতে উঠেপড়ে লেগেছে একাংশ মনিপুরি সংগঠন। এর প্রতিবাদে এবার সরব হয়েছেন জিরিবামের জিরিবামের বিধায়ক আসাব উদ্দিন। এ সম্পর্কে তিনি জিরিবামের জেলাশাসক এবং রাজ‍্যের গৃহ মন্ত্রকের কমিশনারের কাছে এক পত্র প্রেরণ করেছেন। পত্রের মাধ‍্যমে জিরিবামের ঐতিহ্যবাহী গ্রামগুলোর নাম পরিবর্তন না করার আবেদন জানিয়েছেন।বিভিন্ন গণ সংগঠন এবং সাধারণ মানুষ গ্রামের নাম পরিবর্তনের বিরোধী বলে পত্রে উল্লেখ করেছেন তিনি। 

    জিরিবাম জেলা শহর কালীনগর যেখানে অবস্হিত সেখানে একটি প্রাচীন কালীমন্দির রয়েছে। শহরের অভ‍্যন্তরে বাবুপাড়া একটি প্রাচীন নাম। তার একটা ইতিহাসও রয়েছে। এছাড়াও বাঙালি অধ্যুষিত বহু গ্রাম বাঙালির অস্তিত্ব বহন করে আসছে। কিন্তু বর্তমানে ঐতিহ্যবাহী সেই স্থানগুলোর নাম পরিবর্তনের মাধ্যমে বাঙালি জনগণের চিরাচরিত ঐতিহ্য এবং মর্যাদাহানির চক্রান্ত শুরু হয়েছে। বাঙালি অধ‍্যুষিত গ্রামের নাম পরিবর্তন প্রক্রিয়ায় আতঙ্কিত হয়ে উঠেছেন জিরিবামের বাঙালিরা। গ্রামের নাম পরিবর্তনের বিষয় নিয়ে প্রকাশ‍্যে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেন না বিভিন্ন বাঙালি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।  জিরিবামে র জেলাশাসকের নির্দেশ অনুযায়ী, বাঙালি গ্রাম বাবুপাড়ার নতুন নাম দেওয়া হয়েছে লামলেন। উচারতল গ্রামের নাম হচ্ছে লামধংখুন।লক্ষীপুরকে লামজিংলৈকৈ, গুলালতলকে সামুপুনবি, কামরঙাকে খুনিংতেক, নতুন দূর্গাপুরকে লমদাই খুনৌ, মধুপুরকে লৈকৈপুং, হিলঘাটকে সড়ক অতিংবি, কালীনগরকে লৈরেম্বি লৈকৈ, কদমতলাকে কদম পুকপি, বাবুখাল কেচিংকৈ পুং, চম্পানগরকে লৈহাউ পকপি, বরইখালকে খুনজৌ। এভাবেই বাঙালি গ্রামগুলির নাম পরিবর্তনের প্রস্তাব নিয়েছে জিরিবামের বিভিন্ন মনিপুরি সংগঠন এবং জেলা প্রশাসন।এই প্রস্তাব নিয়ে শংকিত হয়ে পড়েছেন জিরিবামের বাঙালি সমাজ। এভাবে বাঙালি গ্রামের নাম পরিবর্তন করা হলে জিরিবামে বাঙালি মানুষের কোনও অস্তিত্বই থাকবে না বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন জিরিবামের বিভিন্ন বাঙালি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

    আরো দেখুন : বাংলাদেশ ও ভারতের অভিন্ন ৬টি নদীর জল বণ্টনকে প্রাধান্য

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং