26 C
Guwahati
Monday, October 3, 2022
More

    গ্রেনেড হামলার দায় অস্বীকার করেও তেল কোম্পানিকে ৭ শর্ত দিল আলফা

    গুয়াহাটি, ১৫ মে :  অসমে ফের উগ্রপন্থি সমস্যা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। চলছে একের পর এক অপহরণ, গ্রেনেড বিস্ফোরণ, খুন ইত্যাদি ঘটনা। সম্প্রতি আলফার অপহরণ করা তিন ওএনজিসি কর্মীর মধ্যে একজনকে সন্ধান আজও পাওয়া যায়নি। সেই উদ্বেগজনক পরিস্থিতির মধ্যেই এবার  গ্রেনেড হামলা চালাল উগ্রবাদীরা। শুক্রবার বেলা একটা নাগাদ উজান অসমের তিনসুকিয়া জেলার অন্তর্গত ডিগবয় থানাধীন টিংরাই বাজারে গ্রেনেড বিস্ফোরণে নিহত হন দুজন। বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলে সন্দীপ সিঙের (২৫) মৃত্যু  হয়েছিল। এরপর বিকেলের দিকে ডিব্রুগড়ে আসাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু ঘটে সুরজিৎ তালুকদার (২২) নামে আরও একজন যুবকের।

    এ দিকে ঘটনাকে কাপুরুষোচিত আখ্যা দিয়ে ঘটনার দ্রুত তদন্ত করার পাশাপাশি দুষ্কৃতীদের গ্রেফতার করতে রাজ্যের পুলিশ-প্রধানকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা। ঘটনা সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী ড. শর্মার কাছে খোঁজখবর নিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।অন্যদিকে এই বিস্ফোরণের সঙ্গে আলফা-স্বাধীন জড়িত নয় বলে বিবৃতি জারি করেছেন উগ্রপন্থী সংগঠনটির প্রধান পরেশ বরুয়া। যদিও এদিনই আলফা রাজ্যের তিনটি তেল কোম্পানিকে ৭টি শর্ত বেঁধে দিয়েছে।

    জানা যায়, ডিগবয়ের টিংরাই বাজারের ব্যবসায়ী পুরনমল আগরওয়াল নিজের হার্ডওয়ারের দোকান বন্ধ করার সময় দুই বাইক আরোহী তাকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছুঁড়ে। সঙ্গে সঙ্গে গ্রেনেডটি বিস্ফোরিত হলে ঘটনাস্থলে মাকুম সুকানপুখুরির বাসিন্দা সন্দীপ সিঙের মৃত্যু হয়। এছাড়া গুরুতর আহত অবস্থায় মনোজিৎ দাস (১৯), সুরজিৎ তালুকদার এবং ঘনশ্যাম আগরওয়াল (৩২)-কে ডিগবয় সিভিল হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। আহতদের অবস্থা সংকটজনক বলে ডিগবয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের ডিব্রুগড়ে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে।

    আরো দেখুন : ফের ভূকম্পে কেঁপে উঠল অসম, অভিকেন্দ্র শোণিতপুর

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং