27 C
Guwahati
Sunday, October 2, 2022
More

    কোভিড রোগীকে বাঁচাতে প্রাণের ঝুঁকি, সম্মানিত চিরাঙের পুলিশ অফিসার প্রসেনজিৎ

    গুয়াহাটি, ২৪ মে : এ যেন খাকি উর্দির কোনও দেবদূত ! হ্যাঁ, দেবদূত -ই বটে। কোভিড পরিস্থিতিতে মানবতা যখন দূরত্বের খোলসে বন্দি, তখন করোনা আক্রান্ত এক রোগীকে বাঁচাতে প্রাণের বাজিই রাখলেন এক পুলিশ অফিসার। তিনি চিরাংয়ের ঢালিগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ, ইন্সপেক্টর প্রসেনজিৎ দাস। যে ঘটনার পর এখন অসম পুলিশের কাছে তিনি ‘হিরো’ হয়ে উঠেছেন। ইতিমধ্যে ওই পুলিশ অফিসারকে সম্মান জানিয়েছেন চিরাংয়ের এসপি এবং স্থানীয় বিজনি কেন্দ্রের বিধায়ক।

    পিপিই কিট পরে কোভিড রোগীকে নিয়ে হাসপাতালের পথে পুলিশ অফিসার প্রসেনজিৎ দাস।

    ঘটনা শনিবারের। রাত ১১ নাগাদ চিরাং পুলিশ কন্ট্রোল রুম থেকে খবর আসে, ছাতিপুর এলপিজি গেট এলাকার প্রয়াত সামাদ আলির ছেলে সাদ্দাম হোসেনের অবস্থা সঙ্কটজনক। তার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা ৫০-এর নিচে। চিরাং পুলিশ কন্ট্রোল রুমে অসুস্থ সাদ্দাম নিজেই ফোন করে একথা জানিয়েছেন। কী ঘটতে চলেছে সেটা অনুমান করতে অসুবিধা হয়নি প্রসেনজিৎ দাসের। তৎক্ষনাৎ ঘটনাস্থলে যান তিনি। তালা বন্ধ গেট ভেঙে রোগীর বাড়িতে প্রবেশ করেন। দেখতে পান অসুস্থ সাদ্দাম তার বিছানায় অর্ধ-অচেতন অবস্থায় পড়ে রয়েছে। ততক্ষণে একটি ১০৮ অ্যাম্বুলেন্সও ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌঁছায়। কিন্তু অ্যাম্বুলেন্সে মাত্র একজন স্বাস্থ্যকর্মী থাকায় রোগীকে অ্যাম্বুলেন্সে উঠানো নিয়ে সমস্যা দেখা দেয়। অফিসার নিজেই ১০৮কর্মীর সহায়তায় পিপিই কিট পরিধান করেন।অসুস্থ সাদ্দামকে ঢালিগাঁওয়ের কাজলগাঁও হাসপাতালে নিয়ে যান। এরপর রোগীকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেওয়া হয়। ওসির এই তৎপরতায় সাদ্দাম আপাতত বেঁচে গেলেন। নিজের প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে তাঁর এই তৎপরতায় গোটা পুলিশ মহল গৌরব বোধ করছে।

    আরো দেখুন : উপত্যকার অভিন্ন ইস্যুতে বিধায়করা একযোগে তৎপর হোন, ডাক বরাকবঙ্গের

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং