32 C
Guwahati
Saturday, October 1, 2022
More

    কোভিড বিধি শিকেয়, করোনা তাড়াতে ২১ দিন ধরে চলছে ‘করোনা মাঈ’-র পুজো

    কোভিড বিধি শিকেয়, করোনা তাড়াতে ২১ দিন ধরে চলছে ‘করোনা মাঈ’-র পুজো

    বারানসী, ১৮ মে : কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল অবস্থা গোটা দেশের। ভাইরাসের প্রকোপ থেকে রক্ষা পেতে সরকার কঠোর নির্দেশ জারি করেছে। চলছে বিভিন্ন রাজ্যে লকডাউন। কিন্তু ভয়াবহ এই পরিস্থিতিতেও একাংশ লোক অন্ধ বিশ্বাস ও কুসংস্কারাচ্ছন্ন হয়ে আজগুবি কাজকর্ম করেই চলেছে। দৈনিক রেকর্ড সংক্রমণ এবং এত প্রাণহানির পরেও সচেতনতা আসছে না। বিজ্ঞানের দোরগোড়ায় এখনও বাসা বেঁধে আছে কুসংস্কার।

    এমন কুসংস্কারের বশবর্তী হয়ে এবার মোদির কেন্দ্র বারাণসীতেও সম্পন্ন হল করোনা মাঈ’র পুজো। করোনা ঠেকাতে যখন বিভিন্ন রাজ্যে একাধিক বিধিনিষেধ জারি হচ্ছে, সরকারের তরফে পই পই করে বলা হচ্ছে প্রয়োজন ছাড়া বাইরে না বেরোতে, দূরত্ব বিধি মেনে চলতে, তখনই দল বেঁধে পুজো দিতে গেলেন বারাণসীর কুশীনগর গ্রামের মহিলারা। যে সে পুজো নয়, তাঁদের আরাধ্য একেবারে ‘করোনা মাঈ’। ভাইরাসকে দেবতার আসনে পুজো দেওয়ার নাম করে চলল যথেচ্ছ জমায়েত, লাইন দিয়ে পুজো দিলেন গ্রামের মহিলারা। দূরত্ববিধি মানা তো দূর, মাস্কটুকুও পড়েননি অনেকেই। একসঙ্গে এক জায়গায় বসে অনেকে মিলে পুজোর আয়োজন করেন তাঁরা।

    ‘করোনা মাঈ’-এর পুজোয় গোটা উত্তরপ্রদেশ জুড়ে কয়েকগুণ বেড়ে গেল করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা। এর আগে আজমগড়ে এভাবেই পুজো দেন গ্রামবাসীরা। ফলে সেখানেও সংক্রমণ ছড়ায়। কুশীনগর গ্রামের মহিলাদের অবশ্য দৃঢ় বিশ্বাস, গত ২১ দিন ধরে চলতে থাকা ‘করোনা মাঈ’-এর পুজো ঠিকঠাক ভাবে সম্পন্ন করতে পারলেই দেশ থেকে মুছে যাবে অতিমারী। মহিলারা এও জানিয়েছেন, গ্রামের পুরোহিতদের পরামর্শ মেনেই এই পুজো করছেন তাঁরা। বলা বাহুল্য, সেই পুরোহিতদের দাবিও তেমনটাই।

    এদিকে করোনার মোকাবিলায় বারবার উঠে এসেছে গোমূত্র কিংবা গোবরের মতো দ্রব্যের ব্যবহারের কথাও। শাসক বিজেপি দলের বহু নেতা-মন্ত্রী-সাংসদ বারবার এসব ব্যাপারে নিজেদের মতামত পেশ করছেন। চিকিৎসকরা যতই বোঝানোর চেষ্টা করুন, অন্ধবিশ্বাসের কাছে হার মানছে বিজ্ঞান, এই অতিমারীর মাঝেও।

    আরো দেখুন : অসমের বন্যা নিয়ন্ত্রণে শীঘ্রই নদী খনন হবে, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং