26 C
Guwahati
Saturday, October 1, 2022
More

    ইম্ফলের হাসপাতালে ঠাঁই মেলেনি, বিনা চিকিৎসায় গর্ভবতী মহিলার মৃত্যু

    ইম্ফল, ৭ আগস্ট : শহরের পাঁচ-পাঁটটি হাসপাতালে ছুটেছেন, কোথাও ভর্তি করেনি। ফলে বিনা চিকিত্‍সায় অকালে প্রাণ হারিয়েছেন এক গর্ভবতী মহিলা। সন্তানেরও মাতৃগর্ভেই মৃত্যু হয়েছে বলে অনুমান। মৃত সন্তানের প্রসবের জন্য উন্নত চিকিত্‍সা পরিষেবার প্ৰয়োজন অনুভব করে চিকিত্‍সকরা ওই গর্ভবতী মহিলাকে স্থানান্তর করেন। কিন্তু অভিযোগ, ইম্ফলের পাঁচটি নামজাদা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ভর্তি করতে আপত্তি জানায় ওই প্রসুতিকে। ফলে অকালে মৃত্যু ঘটল।

    জানা গেছে, মণিপুরের নোনি জেলার নুঙবা মহকুমার পুঁইচি গ্রামের বাসিন্দা জনৈক রোশান বালাঙের স্ত্রী কাচাকনা কামেই প্রসবযন্ত্রনা নিয়ে বুধবার বেলা দুটো নাগাদ সেনাপতি হাসপাতালে ভর্তি হন। তাঁর স্বামী জানিয়েছেন, চিকিত্‍সকরা প্রসূতির সমস্ত কিছু স্বাভাবিক বলে জানিয়েছিলেন। কিন্তু রাত সাড়ে দশটা নাগাদ চিকিত্‍সকরা তাঁকে অন্যত্র উন্নত চিকিত্‍সা পরিষেবার জন্য স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। চিকিত্‍সকদের বক্তব্য, প্রসবে কিছু শারীরিক সমস্যা হচ্ছে। তিনি বলেন, মাতৃগর্ভেই সন্তানের মৃত্যু হয়েছে বলে চিকিত্‍সকরা দ্রুত আমাদের ইম্ফলে নিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দেন।

    রোশান বলেন, চিকিত্‍সকদের পরামর্শ মেনে স্ত্রী-কে নিয়ে সঙ্গে সঙ্গে রওনা দেন। কিন্তু সারা রাত  ইম্ফলের বিভিন্ন হাসপাতালের দরজায় দরজায় ঘুরেও স্ত্রীকে বাঁচাতে পারেননি। পাঁচটি হাসপাতালে গেলেও কোথাও আমার স্ত্রীকে ভর্তিই করেনি। ভোর চারটা নাগাদ ইম্ফলের সিজা হাসপাতালের বাইরে তাঁর স্ত্রী শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, জওহরলাল নেহরু ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্স (জেএনআইএমএস) হাসপাতালও ভর্তি করেনি। এই ঘটনায় মণিপুর জুড়ে তীব্র চাঞ্চল্য ও প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং