26 C
Guwahati
Friday, October 7, 2022
More

    আজব কাণ্ড স্বাস্থ্য বিভাগে! ভ্যাক্সিনেশন সেন্টারে পজিটিভ, সিভিলে নেগেটিভ

    শিলচর, ২৩ মে : ভ্যাকসিন নিতে ভ্যাক্সিনেশন সেন্টারে যাওয়ার পর টেস্টের রেজাল্ট পজিটিভ এলে ফিরিয়ে দেওয়া হয় যুবককে। সঙ্গে তাকে পরামর্শ দেওয়া হয় ১০ দিন “হোম আইসোলেশন”-এ থাকতে। কিন্তু এই টেস্টের রেজাল্ট মেনে নিতে পারছিলেন না ওই যুবক। সঙ্গে সঙ্গেই তিনি  সিভিল হাসপাতালে গিয়ে নমুনা পরীক্ষা করান। এতে তার মনের ভাবনার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে রেজাল্ট আসে নেগেটিভ। সরকারি তত্ত্বাবধানে দু’দফা রেপিড এন্টিজেন টেস্ট (রেট)-এ ভিন্ন ভিন্ন রেজাল্ট আসার পর নিঃসন্দেহ হতে যুবকটি এক বেসরকারি পরীক্ষাগারে গিয়ে করান আরটিপিসিআর টেস্ট। দেখা যায় এতেও রেজাল্ট এসেছে নেগেটিভ।

    এই ঘটনা ঘটেছে শিলচর অম্বিকাপট্টি হিতেশ বিশ্বাস রোডের বাসিন্দা সমুজ্জ্বল বিশ্বাস নামে এক যুবকের ক্ষেত্রে। বছর ২১-এর যুবক সমুজ্জ্বল শিলচরে এনআইটি-র পড়ুয়া। সিভিল হাসপাতালে রেপিড এন্টিজেন টেস্ট ও বেসরকারি পরীক্ষাগারে আরটিপিসিআর টেস্টের রেজাল্ট নেগেটিভ আসায় বর্তমানে তারমধ্যে ফিরে এসেছে স্বস্তি। করোণা আক্রান্ত হননি বলে তিনি নিশ্চিন্ত। তবে প্রথম দফায় ভ্যাক্সিনেশন সেন্টারে টেস্টের রেজাল্ট পজিটিভ আসায় বাতিল হয়ে গেছে তার “ভ্যাকসিনেশন স্লট”।

    সমুজ্জ্বল জানিয়েছেন, ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন করার পর গত ২০ মে শহরের নাজিরপট্টি মডেল প্রাইমারি স্কুল কেন্দ্রে তার জন্য “স্লট” নির্ধারিত হয়। সে অনুযায়ী ওই দিন তিনি ওই স্কুলে ভ্যাকসিন নিতে যান। ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে সেখানে তার রেপিড এন্টিজেন টেস্ট করা হয়। এতে রেজাল্ট আসে পজিটিভ। এই অবস্থায় তাঁকে ভ্যাকসিন না দিয়ে ১০ দিন “হোম আইসোলেশন”-এ থাকতে বলা হয়। কিন্তু শারীরিক অবস্থার কথা ভেবে তার মনে হয়, তিনি পজিটিভ হতে পারেন না। তাই সঙ্গে সঙ্গেই তিনি সতীন্দ্র মোহন দের সিভিল হাসপাতালে গিয়ে ফের নমুনা পরীক্ষা করান। সেখানেও করা হয় রেপিড এন্টিজেন টেস্ট ।ভ্যাকসিনেশন সেন্টারে টেস্ট করানোর ১৫-২০ মিনিটের মধ্যেই সিভিল হাসপাতালে টেস্ট করালেও, এবার রেজাল্ট আসে নেগেটিভ। এরপরও তিনি বসে থাকেননি, পুরোপুরি নিশ্চিত হতে এক বেসরকারি পরীক্ষাগারে যান আরটিপিসিআর টেস্ট করাতে।২০ মে ওই পরীক্ষাগারে আরটিপিসিআর টেস্টের জন্য নমুনা দিয়ে আসার পর রেজাল্ট আসে শনিবার। এই টেস্টের রেজাল্টও আসে নেগেটিভ।

    এসব রিপোর্ট নিয়ে এদিন তিনি ফের যান নাজিরপট্টি মডেল প্রাইমারি স্কুলের ভ্যাক্সিনেশন সেন্টারে। কথা বলেন, কর্মরত স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে। কিন্তু স্বাস্থ্যকর্মীরা তাকে জানিয়ে দেন, ২০ মে সেন্টারে টেস্টের রেজাল্ট পজিটিভ আসায় বাতিল হয়ে গেছে তার ভ্যাকসিনেশনের “স্লট”। তাই ব্যর্থ মনোরথ তাকে ফিরে যেতে হয় বাড়িতে। এই পরিস্থিতিতে ক্ষুব্দ সমুজ্জ্বলের প্রতিক্রিয়া, টেস্টিং এর ক্ষেত্রে ভুলের দরুন তিনি ভ্যাকসিনেশনের সুযোগ হারিয়েছেন। এবার তাকে এর জন্য আরও কতদিন অপেক্ষা করতে হবে কে জানে। তবে ভ্যাকসিনেশনের সুযোগ হারানো থেকেও বড় কথা, ভুল রিপোর্টৈর দরুন হয়তো অনেক নেগেটিভ রোগীকে পজিটিভ হয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে হোম আইসোলেশনে বা হাসপাতালে। এমন ঘটনায় টেস্টের রিপোর্টের উপর মানুষের আস্থা কমে যাবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

    আরো দেখুন : শতবর্ষের নিয়ম ভাঙল ভারত সেবাশ্রম, সঙ্ঘ, করোনা রোগীদের পাতে মাছ-মাংসের ঝোল

    Published:

    Follow TIME8.IN on TWITTER, INSTAGRAM, FACEBOOK and on YOUTUBE to stay in the know with what’s happening in the world around you – in real time

    First published

    ট্ৰেণ্ডিং